ব্রেকিং নিউজ
wb_sunny

ব্রেকিং নিউজ

ই-জিপি তে দরপত্র সাবমিট করার প্রক্রিয়া

ই-জিপি তে দরপত্র সাবমিট করার প্রক্রিয়া

 

egp,egp bd,egp tender bd,egp tender,egp system,egp training,egp tutorial,egp account opening,egp tutorial bangla,egp lirik,igp vs egp,egp registration tutorial bangla,egp registration,egp registration process,egp dangdut,egp noa,jvca egp,egp open,cptu egp,egp cptu,egp reit,remix egepe egp,egp cover,lirik egp,egp vs igp,egp bd gov,egp stock,egp tender opening,egp tender training,egp new registration,egp training tutorial

 

বাংলাদেশ সরকার রাষ্ট্রী উন্নয়নের ক্রয় প্রক্রিয়া স্বচ্ছতা রাখার জন্য অনলাইনে দরপত্র জমা দেওয়া জন্য ইলেকট্রিক্স গভারম্যান্ট প্রকিউরম্যান্ট বা ই-জিপি চালু করা হয়। আর তাই আজ আমরা জানার চেষ্টা করবো কি ভাবে ই-জিপির মাধ্যমে দরপত্রে অংশ গ্রহন করার থেকে শেষ পর্যন্ত সকল প্রক্রিয়া গুলোর নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার। 
 

দরপত্র প্রকাশের পূর্বের কাজ:

একটি দরপত্র প্রকাশের পূর্বের কাজ রয়েছে APP অনুমোদন করতে হবে। PE APP অনুমোদন করে দরপত্র পাবলিশ করে থাকেন। দরপত্রের নোটিশ ইজিপিতে পাবলিশ হওয়ার পরে সরবরাহকারী বা ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের করনীয়। প্রতিটি দরপত্রের একটি নিদির্ষ্ট টেন্ডার প্রোপজাল আইডি রয়েছে। ইজিপিতে তালিকা ভুক্ত যেকোনো ব্যাংকে টেন্ডার প্রোপজাল আইডি এবং ইজিপিতে রেজিষ্ট্রেশন ইমেইল আইডির মাধ্যমে দরপত্রের সিডিউলের মূল্য ও সেবা মূল্য পরিশোধের মাধ্যমে দরপত্রের সিডিউলটি ক্রয় করতে হবে।
 

দরপত্র ক্রয় করার পরের করনীয় ধাপ:

দরপত্রের সিডিউলটি ক্রয় করা হয়ে গেলে দরপত্রের সিডিউলে টেন্ডার টিডিএস এ উল্লেখ্যিত জামাতন ফি পরিশোধ করতে হবে। যার জন্য ইজিপিতে তালিকা ভুক্ত যেকোনো ব্যাংকে টেন্ডার প্রোপজাল আইডি এবং ইজিপিতে রেজিষ্ট্রেশন ইমেইল আইডির মাধ্যমে দরপত্রের জামান ফি পরিশোধ করতে হবে। দরপত্রের ফি এবং দরপত্রের জামান ফি জমা হয়েছে নাকি সেটি গ্রাহক তার ইমেইলের মাধ্যমে জানতে পারবেন। ক্রয়কৃত দরপত্রের ড্যাসবোর্ডে গিয়ে পেমেন্ট অপশনে পাওয়া যাবে।
 

দরপত্র সাবমিটের জন্য প্রস্তুতি:

দরপত্রের নিদের্শনা অনুযায়ী দরপত্রে অংশগ্রহনকারী দরপত্রে অংশ গ্রহণ করার জন্য দরপত্রে উল্লেখ্যিত প্রয়োজানীয় কাগজপত্র ব্যবস্থা করতে হবে। তবে প্রতিটি দরপত্রের জন্য কিছু নিদির্ষ্ট কাগজপত্রের চাহিদা রয়েছে। একজন দরপত্রে অংশগ্রহণকারী দরপত্রে অংশগ্রহন করার জন্য যা যা প্রয়োজন সেুগুলো হলো ।
 

প্রাতিষ্ঠানিক কাগজপত্র:

১) ট্রেড লাইসেন্স, ২) ই-টিন সার্টিফিকেট, ৩) ১৩ ডিজিট ভ্যাট সাটির্ফিকেট, যেটিকে বিন সাটির্ফিকেট বলা হয়, ৪) জাতীয় পরিচয়পত্র। ৫) এবিডেফিট  নোটারি পাবলিক কপি, ৬) ক্রেডিট লাইন (নিদির্ষ্ট পরিমানের টাকার), ৭) ব্যাংক সলবেন্সি।
 

প্রাতিষ্ঠানিক কাজের অভিজ্ঞতা:

প্রতিটি দরপত্রের অংশগ্রহনের জন্য সর্ব নিম্ন কাজের অভিজ্ঞতা থাকে হবে ০৩ থেকে ০৫ বছর পর্যন্ত। এবং দরপত্রের উল্লিখিত আইটেম গুলোতে কাজের অভিজ্ঞতা অনুযায়ী নিদির্ষ্ট পরিমানের টাকার অংকে কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
 

দরপত্রের আইটেম অনুযায়ী:

দরপত্রের আইটেম অনুযায়ী, প্রতিটি আইটেমের ক্যাটলগ, ম্যানুফেকচার কোম্পানি/ ডিস্ট্রিভিউটরের কাছে থেকে অথারেশন লেটার। তবে অবশ্যেই খেয়াল রাখতে হবে  অথারেশন লেটারটি হতে দরপত্রের উল্লেখিত ফরমেট অনুযায়ী। কোম্পানির আইএসও সাটিফিকেট।
 
বিঃদ্রঃ দরপত্রের চাহিদা অনুযায়ী সকল কাগজপত্র গুলো সংগ্রহের ক্ষেত্রে অসাধু পন্থার আশ্রয় নিবেন না। তা না হলে যেকোনো পরিস্থিতে দরপত্রের পিই আপনার বিরুদ্ধে যেকোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে।
 
উপরে উল্লেখ্যিত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলো দরপত্রের ড্যাশবোর্ডের টেন্ডার প্রিপারেশন অপশনে দরপত্রে উল্লেখ্যিত ফরমেট অনুযায়ী আপলোড করতে হবে।

Tags

Newsletter Signup

Sed ut perspiciatis unde omnis iste natus error sit voluptatem accusantium doloremque.

Post a Comment